আঁচিল দূর করার উপায়

আঁচিল দূর করার সহজ উপায় সমূহ জেনে নিন!

আঁচিল দূর করার উপায় – মানুষের শরীরের বিভিন্ন অংশে আঁচিল উঠতে দেখা যায়। আঁচিল দেখতে অনেক টা ফোস্কার মতো। মুখে বা শরীরের যে কোন অংশে আঁচিল হতে পারে। অতিরিক্ত আঁচিল মুখের সৌন্দর্য ম্লান করে দেয়। আপনি ঘরে বসেই  প্রাকৃতিক উপায়ে  আঁচিল দুর করতে পারেন। চলুন জেনে নিই আঁচিল দুর করার উপায় সমূহ…

আঁচিল কি?

তাহলে আঁচিল দূর করার উপায় জানার আগে চলুন অল্পবিস্তর আলোচনা করা যাক আঁচিল সম্পর্কে। 

মূলত আঁচিল বৃন্ত যা চামড়ার সাহায্যে লেগে থাকে, যাকে ইংরেজিতে peduncle বলা হয়। আঁচিল হলে কোনো প্রকার ব্যথা অনুভূত হয় না। যার ফলে অনেকে বুঝতে পারেন না যে তার আঁচিল হয়েছে। 

আঁচিল আকারে ছোট এক ধরনের  বিনাইল টিউমার যা থেকে ক্যান্সার সৃষ্টি করে না।  অর্থাৎ এই টিউমার গুলো আশেপাশের টিস্যু কে আক্রমণ করে না বা ছড়ায় না। আঁচিল কে ননক্যান্সারাসও বলা হয়। 

আঁচিল দূর করার উপায়

সাধারণত আঁচিল দীর্ঘস্থায়ী হয়ে থাকে। উঠলে যেন আর যেতেই চায় না।  এই আঁচিল থেকে মুক্তি পেতে ঘরোয়া কিছু উপায় অনুসরণ করুন। 

এ্যালোভেরা জেলঃ 

ত্বকের জন্য এ্যালোভেরা জেল একটি কার্যকরী উপাদান। এ্যালোভেরা জেল আঁচিলের ওপর অল্প পরিমান নিয়ে ভালো ভাবে ম্যাসাজ করুন।  ত্বকে জেল শুকিয়ে না যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। এরপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি সপ্তাহে তিন দিন করুন। 

আলুঃ 

আলুতে থাকা প্রাকৃতিক ব্লিচ উপাদান আঁচিল সারতে সাহায্য করে। এক টুকরো আলু কিছুক্ষন আঁচিলের উপর ঘসতে থাকুন। এরপর ব্যান্ডএডের মাধ্যমে আঁচিলের ওপর সারারাত লাগিয়ে রাখুন। এক সপ্তাহ হতে দশ দিনের মধ্যে আঁচিল খসে পড়ে যাবে। এছাড়াও ত্বকের যেকোনো দাগ মিলিয়ে দিতে পারে আলু।

>> আলু চাষ পদ্ধতি – জেনে নিন আলু কিভাবে চাষ করতে হয়?

পেয়াজের রসঃ 

ত্বক ও চুলের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের জন্য পেয়াজের রস খুবই উপকারী। আঁচিল দুর করতে পেঁয়াজের রস তুলায় নিয়ে আঁচিলে লাগিয়ে এক ঘন্টা রাখুন। এরপর ধুয়ে ফেলুন। 

এভাবে দিনে তিন বার পেঁয়াজের রস আঁচিলের স্থানে ব্যবহার করলে আাঁচিল দ্রুত সেরে যাবে । পেঁয়াজের রস ত্বকে প্রবেশ করার ফলে বিশেষ কিছু এ্যাসিডের মাত্রা বৃদ্ধি পায় ফলে আঁচিল দ্রুত খসে পড়ে। আঁচিল দূর করার উপায় গুলোর মধ্যে পেঁয়াজের রস একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান।

রসুনঃ 

রসুনে এমন কিছু উপাদান আছে যা আঁচিলের চিকিৎসায় গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখে। রসুনের কয়েকটি কোয়া কুচি কুচি করে পেষ্ট তৈরি করে আঁচিলের ওপর কিছুক্ষন লাগিয়ে রাখুন। এরপর কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। 

>> রসুন এর উপকারিতা – ১১ টি গুণাগুণ জেনে নিন!

কলার খোসাঃ 

আঁচিল দুর করতে কলার খোসা দারুণ ভাবে কাজ করে। কলার খোসার ভেতরের অংশটি পেষ্ট তৈরি করে আঁচিলে লাগিয়ে রাখুন সারা রাত। সকালে ঘুম থেকে উঠে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। কলার খোসায় এ্যান্টি-অক্সিডেন্ট আছে যা আঁচিল দুর করতে সাহায্য করে। 

>> কলার উপকারিতা – জেনে নিন ৫ টি জাদুকরী গুণাগুণ!

শেষ কথা

আঁচিল শরীরে তখনই হয়, যখন ত্বক ভাইরাস দ্বারা আাক্রান্ত হয়। মুখের যে কোন অংশে আঁচিল হলে সৌন্দর্য যেমন নষ্ট হয়ে যায় তার সাথে চিন্তারও শেষ নেই। 

আঁচিল উঠলে চিন্তার আর কোন  কারণ নেই। আঁচিল দূর করার উপায় পেতে হলে ওপরে দেয়া ঘরোয়া পদ্ধতি  গুলো ধৈর্য ধরে অনুসরণ করুন ফল পাবেন আশা করি। ঘরোয়া পদ্ধতি ছাড়াও হোমোওপ্যাথিক ওষুধের মাধ্যমেও আঁঁচিল দুর করা সম্ভব। 

শেয়ার করুন-

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top