এম আর আই কি কি রোগ নির্ণয় করে জেনে নিন!

এম আর আই কি কি রোগ নির্ণয় করে – শরীরের বিভিন্ন অংশ যেমন মস্তিষ্ক, মেরুদণ্ড, হাঁটু, কাঁধ, কব্জি, গোড়ালি, পেট, স্তন, হার্ট ইত্যাদির নিখুঁত পরীক্ষার জন্য এম আর আই ব্যবহার করা হয়।

এম আর আই কি কি রোগ নির্ণয় করে

তাহলে চলুন এম আর আই কি এবং এম আর আই এর মাধ্যমে যেসকল রোগ পরিক্ষা করা যায় জানতে হলে পুরো আর্টিকেলটি পড়তে থাকুন শেষ পর্যন্ত। 

এম আর আই

এম আর আই কি এবং এম আর আই যে সব রোগ নির্ণয় করে সে সম্পর্কে আমাদের ধারণা নেই বললেই চলে। এটি মূলত একটি শক্তিশালী ও নিখুঁত পরীক্ষা। কিংবা বলা যায়, এটি একটি ব্যথামুক্ত ইমেজিং টেস্ট। এর মাধ্যমে শরীরের মধ্যকার ছবি তোলা হয়। 

চিকিৎসকেরা যখন বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষা করার পরেও রোগের ব্যাপারে নিশ্চিত হতে পারেন না, তখন এম আর আই করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। 

বর্তমান চিকিৎসা ক্ষেত্রে এম আর আই অসাধারণ ডায়াগনস্টিক টুল। মস্তিষ্ক, চোখ, মেরুদণ্ড, রক্তনালী, হাড়, ফুসফুস, হৃদপিণ্ড পেট এবং তলপেট সহ শরীরের সব অংশের এম আর আই করা সম্ভব। 

টিউমার, ক্যান্সার, সংক্রামণ, রক্তক্ষরণ এবং স্নায়ুতন্ত্রের সমস্যা সহ বিভিন্ন রোগ নির্ণয়ে এম আর আই-এর মাধ্যমে তোলা ছবি কার্যকর ভূমিকা রাখে। চলুন তাহলে জানা যাক এম আর আই যেসকল রোগ নির্ণয় করে?

এম আর আই কি কি রোগ নির্ণয় করে

এম আর আই বা Magnetic Resonance Emagine হলো অত্যাধুনিক শক্তিশালী পরীক্ষা, যার মাধ্যমে নির্দিষ্ট রোগ বা শরীরের অস্বাভাবিক অবস্থা খুঁজে বের করা যায়। 

নিম্নলিখিত রোগ গুলি এম আর আই দ্বারা নির্ণয় করা যায়

১. মস্তিষ্কের রোগ যেমন (ব্রেইন টিউমার, স্ট্রোক এবং মস্তিষ্কের অন্যান্য সমস্যা)।

২. জয়েন্ট (যেমন হাঁটু,কাঁধ,কব্জি এবং গোড়ালি)। 

৩. মেরুদণ্ডের রোগ ও ক্রিড়া জনিত আঘাত। 

৪. মেয়েদের স্তন ও তলপেটের সমস্যা। 

৫. হাড় ও মাংসপেশির সমস্যা। 

৬. প্রস্টেট সমস্যা। 

৭. লিভার, পিত্তথোলি, ও কিছু আন্ত্রিক রোগ। 

৮. রক্ত নালীর অস্বাভাবিকতা।

৯. নাক,কান ও গলার সমস্যা। 

১০. ফুসফুস ও হৃদপিণ্ডের রোগ। 

১১. স্নায়ুতন্ত্রের সমস্যা। 

১২. হার্ট,রক্তক্ষরণ এবং ক্যান্সার সহ বিভিন্ন ধরনের জটিল রোগ নির্ণয় করা হয় এম আর আই দ্বারা।

এম আর আই কেন করা হয় 

১. এম আর আই দিয়ে শরীরের প্রতিটা টিস্যুর অবস্থা স্পষ্ট ভাবে বোঝা সম্ভব হয়।

২. ব্রেইন ও স্পাইনাল কর্ড এর অবস্থা বোঝার জন্য এম আর আই করা হয়। 

৩. শরীরের কোন অংশে টিউমার আছে কিনা জানার জন্য এম আর আই করা হয়। 

৪. দূর্ঘটনার কারণে মাথায় ইন্টারনাল ব্রিডিং হচ্ছে কিনা বোঝার জন্য এম আর আই করা হয়। 

৫. স্ট্রোকের পর মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ হচ্ছে তা জানার জন্য এম আর আই করা হয়। 

পরিসমাপ্তি 

এম আর আই বিংশ শতাব্দীর এক মহান আবিষ্কার। অগণিত মানুষের জটিল রোগ নির্ণয় করে চিকিৎসা জগতে ব্যাপক অবদান রেখে চলেছে এটি। উপরোক্ত আলোচনা থেকে আমরা এম আর আই যেসকল রোগ নির্ণয় করে তা জানতে পেরেছি। অতএব এখন নিশ্চয় এম আর আই কথাটি শুনলে আপনার বিচলিত হবার কিছু নেই। 

শেয়ার করুন-

2 thoughts on “এম আর আই কি কি রোগ নির্ণয় করে জেনে নিন!”

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top