৫ টি অবাক করা কলার উপকারিতা জেনে নিন-

মার্কিন আদমশুমারি ব্যুরো অনুসারে আমেরিকানরা অন্য যে কোনও তাজা ফলের চেয়ে প্রতি বছর বেশি কলা খায়।

কলা আপনার পক্ষে স্বাস্থ্যকর,তাই আমাদের প্রত্যেকেরই নিয়মিত কলা খাওয়া উচিত।

৫ টি অবাক করা কলার উপকারিতা জেনে নিন-

কলার উপকারিতা

কলার উপকারিতা #১ সুপারফুড

আপেল ভুলে যান। দিনে একটি কলা ডাক্তার থেকে আপনাকে দূরে রাখে।
কলা স্বাস্থ্য সুবিধাগুলি আপেলের তুলনায় অনেক বেশি। এর কারণ আপেলের চেয়ে অনেকগুলি ভিটামিন এবং পুষ্টি রয়েছে।

কলাতে দ্বিগুণ কার্বোহাইড্রেট, ভিটামিন এ এবং আয়রনের চেয়ে পাঁচগুণ এবং আপেলের চেয়ে তিনগুণ ফসফরাস রয়েছে। কলা পটাশিয়াম , ফাইবার এবং প্রাকৃতিক শর্করা সমৃদ্ধ ।

ভিটামিন সি , পটাশিয়াম ও অন্যান্য ভিটামিন ও মিনারেলস কলা সামগ্রিক সুস্বাস্থ্য বজায় রাখার জন্য সাহায্যের ধারণ করে।

ফলের চিনিযুক্ত উপাদান ফাইবারের সাথে সুষম হওয়ার কারণে এটি স্বাস্থ্যকর রক্তে গ্লুকোজ স্তর বজায় রাখতে সহায়তা করে। আমেরিকান ডায়াবেটিস অ্যাসোসিয়েশন অনুসারে এমনকি ডায়াবেটিসে আক্রান্তরাও কলা উপভোগ করতে পারেন।

পুষ্টির এই সম্পদ কলাকে একটি “সুপারফুড” করে তোলে যা আপনার স্বাস্থ্যকর দৈনিক পদ্ধতির একটি অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ হওয়া উচিত।

কলার উপকারিতা #২ এনার্জি বুস্টার

২০১২ সালে পিএলওএস ওয়ান-এ প্রকাশিত অ্যাপালিশিয়ান স্টেট ইউনিভার্সিটির এক গবেষণা অনুসারে- কলা ব্যয়বহুল স্পোর্টস ড্রিঙ্কের চেয়ে শক্তির একটি ভাল উত্স।

দুটি কলা ১/ ২ ঘন্টা ওয়ার্কআউট বা হাঁটার জন্য পর্যাপ্ত ক্যালোরি সরবরাহ করে।
আপনি যখন ক্লান্ত এবং অলস বোধ করেন তখন কফি বা চিনিযুক্ত নাস্তার পরিবর্তে একটি কলা খেয়ে নিন।

আপনার শক্তির স্তর দীর্ঘস্থায়ী হবে এবং আপনি ক্যাফিন বা কেক দ্বারা সৃষ্ট নাটকীয় ক্র্যাশের শিকার হবেন না।

কলার উপকারিতা #৩ উন্নত হার্টের স্বাস্থ্য

যেহেতু কলা পটাসিয়াম সমৃদ্ধ, কলা শরীরের সংবহনতন্ত্রকে মস্তিষ্কে অক্সিজেন সরবরাহ করতে সহায়তা করে।

জাতীয় স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটস এর মতে, এটি স্বাস্থ্যকে নিয়মিত হার্টবিট, নিম্ন রক্তচাপ এবং দেহে পানির যথাযথ ভারসাম্য বজায় রাখতে সহায়তা করে।

আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশন জার্নাল স্ট্রোকের ২০১৪ সালের এক গবেষণা অনুসারে পটাসিয়াম সমৃদ্ধ খাবারগুলি বয়স্ক মহিলাদের স্ট্রোকের ঝুঁকি কমাতেও সহায়ক।

কলার উপকারিতা #৪ কলা ওজন কমাতে সাহায্য করতে পারে

কোনও গবেষণায় ওজন হ্রাসের কলাগুলির প্রভাবগুলি সরাসরি পরীক্ষা করা হয়নি। তবে কলাতে বেশ কয়েকটি বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা তাদের ওজন হ্রাস-বান্ধব-খাদ্য হিসাবে তৈরি করে ।

কলার উপকারিতা #৫ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করতে

একটি মাঝারি আকারের কলা পটাসিয়ামের জন্য প্রস্তাবিত দৈনিক খাওয়ার (আরডিআই) এর ১২% এবং ম্যাগনেসিয়ামের জন্য ১৬% আরডিআই সরবরাহ করে, যা উভয় পুষ্টিরই এক অসামান্য উত্স হিসাবে তৈরি করে!

উচ্চ রক্তচাপের রোগীদের ক্ষেত্রে কলা জাতীয় পটাসিয়ামযুক্ত উচ্চমাত্রার খাবারগুলি রক্তচাপ কমানোর জন্য প্রতিকার হিসাবে ব্যবহার করা যেতে পারে।

আরো পড়ুন-

স্বাস্থ্যকর জীবনযাপনের জন্য সেরা ১৮ টি বাংলা হেলথ টিপস

ইসলাম মানসিক স্বাস্থ্য সম্পর্কে কী বলে?

লেবুর যত গুণাগুণ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *