চিন আপ এর উপকারিতা

চিন আপ এর উপকারিতা – নিয়মিত চিন আপ দিলে শরীরের উন্নতি হয়?

চিন আপ এর উপকারিতা – চিন আপ ব্যায়ামের এমন একটি কৌশল যার মাধ্যমে সুগঠিত ও শক্তিশালী বাইসেপ, বাহুর শক্তি বৃদ্ধি, কাঁধ ও পিঠের মাংসপেশীর উন্নতি করা যায়। তাছাড়া চিন আপ এর উপকারিতার মধ্যে আরো আছে ফ্যাট বার্ন, ওজন কমানো, হজমশক্তি বৃদ্ধি ইত্যাদি।

চিন আপ এর উপকারিতা

এই চিন আপ ব্যায়াম টি আমাদের অনেকের কাছে পরিচিত নয়। তবে সারাদিনে অল্প কিছু সময় ব্যয় করে যদি এটি অনুশীলন করা হয় তাহলে আপনি অবশ্যই আকর্ষণীয় কাঠামো ও সুস্থ্য-সবল শরীরের অধিকারী হবেন। চলুন এর উপকারিতা সমূহ জেনে নি।

১) আগেকার মানুষ সক্রিয়ভাবে কায়িক শ্রম দেওয়ার ফলে তাদের পেশীগুলোর ব্যায়াম ন্যাচারালি হয়ে যেত। কিন্তু আমাদের কর্মকান্ডগুলো কম্পিউটার, স্মার্টফোন, বা খাতাপত্রের মধ্যে সিমাবদ্ধ থাকে। 

এমনকি আমাদের হাট-হাটি করার মত কাজ বা পর্যাপ্ত সময়ও থাকে না। যে কারণে পেশীগুলোর ব্যায়াম বা সুগঠিত হয়ে ওঠা স্বাভাবিক ভাবে হয় না। চিন আপ এই ক্ষেত্রে অত্যন্ত সহায়ক ভূমিকা পালন করতে পারে। 

এর মাধ্যমে শরীরের অধিকাংশে পেশীর ব্যায়াম হয়ে যায়। তাই শরীরের পেশিগুলো হয়ে ওঠে সুগঠিত ও শক্তিশালী। বিশেষষত পুরো প্রক্রিয়াটিতে লক্ষ্যযুক্ত প্রধান পেশী হ’ল লেটিসিমাস ডরসী, ফোরআর্মস, বাইসেপ এবং পিঠের পেশি।

>> পুশ-আপ বা বুক ডাউন এর উপকারিতা জেনে নিন!

২) চিন আপ এর মাধ্যমে কাঁধ সুগঠিত ও শক্তিশালী হয়। এটি কাঁধের পেশিগুলোর জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত ব্যায়াম। তাছাড়া নিয়মিত চিন আপ করলে কাঁধের ব্যথা ও ব্যাক পেইন থেকে দূরে থাকতে পারবেন খুব সহজেই। 

৩) মানসিক দৃঢ়তা বৃদ্ধি করে চিন আপ। শুনতে অবাক লাগলেও কথা সত্যি। এটি কিছুটা চ্যালেঞ্জিং ব্যায়াম। পা মাটিতে স্পর্শ না করে শুধুমাত্র হাত ব্যবহার করে শরীরকে টেনে উপরে উঠানো বা ধরে রাখা আপনাকে মানসিক শক্তি পরীক্ষায় ফেলে দেয়। 

যে কারণে চিন আপ এর উপকারিতার মধ্যে মানসিক দৃঢ়তা অন্যতম। এটি আপনাকে স্বাস্থ্যকর এবং মানসিকভাবে শক্ত একটি শরীর উপহার দিবে।

৪) এটি বলার অপেক্ষা রাখে না যে চিন আপ এর মাধ্যমে শরীরের অতিরিক্ত মেদ ঝরে যায়। এর মাধ্যমে আপনি শরীরের অতিরিক্ত চর্বি ঝরিয়ে সুঠাম দেহের অধিকারী হয়ে উঠবেন।

৫) চিন আপ শরীরের গুরুত্বপূর্ণ পেশীগুলোকে সংযুক্ত করার মাধ্যমে ক্যালোরি দ্রুত বার্ন করে এবং বিপাক ক্রিয়া বৃদ্ধি করে। যার ফলে আপনি অসুস্থ হয়ে পড়লে দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবেন।

৬) ওজন কমানোর ক্ষেত্রে চিন আপ এর উপকারিতা অপরিসীম। ক্যালোরিগুলো আমাদের শরীরের পেট সহ বিভিন্ন অংশে চর্বি আকারে জমা হয়, যার ফলে আমাদের ওজন বেড়ে যায়। চিন আপ এই সমস্ত ক্যালোরি বার্ন করার মাধ্যমে চর্বি ঝরিয়ে ফেলে আমাদের ওজন নিয়ন্ত্রন করে।

>> সিট-আপ কেন করবেন? এর উপকারিতা জেনে নিন!

৭) চিন আপ এমন একটি অনুশীলন যা সুন্দর দেহ গঠন করার পাশাপাশি পেশীগুলোকে ভারী আইটেম বহন করার মত শক্তিশালী করে তোলে। সাধারণত যারা পেশীবহুল শরীর পছন্দ করে তাদের জন্য চিন আপ খুব ভাল একটি ব্যায়াম।

৮) চিন আপ বাইসেপের গঠন সুন্দর করে এবং বাহুর শক্তি বৃদ্ধি করে। নিয়মিত অনুশীলন শুধু কাঁধ ও পিঠের জন্য ভাল তা নয়, বরং বাইসেপ, ফোরআর্মগুলিকেও সুগঠিত ও শক্তিশালী করে তোলে। 

৯) সুগঠিত শরীর কাঠামো নিশ্চিত করে চিন আপ। সুন্দর বডি কাঠামো অধিকারী হতে সবাই চায়, কিন্তু আমাদের সবার শরীরের গঠন কি সুন্দর? প্রতিদিন চিন আপ করে কিছুটা সময় কাটানোর অভ্যাসের মাধ্যমে আমরা এই সুন্দর শারীরিক গঠন কাঠামো নিশ্চিত করতে পারি।

সতর্কতা

চিন আপ অনুশীলন করার আগে বিষয়টির প্রক্রিয়াগুলো সম্পর্কে সঠিকভাবে জেনে নিন। ভুল উপায়ে অনুশীলন করতে গেলে পেশীর উপর ক্ষতিকর প্রভাব পড়তে পারে।

শেষ কথা

এটা নিশ্চিতভাবে বলা যায় আপনি এটিকে নিয়মিত অনুশীলনের রুটিনে অন্তর্ভুক্ত করলে দুর্দান্ত ফলাফল পাবেন কারণ চিন আপ এর উপকারিতা প্রশ্নাতীত। আপনার শরীরের গঠনকে আকর্ষণীয় এবং কর্মক্ষম করতে নিয়মিত চিন আপ অনুশীলন করুন।

শেয়ার করুন-

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top