টমেটোর উপকারিতা এবং এর ঔষধি-গুণ জেনে নিন!

টমেটোর উপকারিতা – টমেটোতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিড্যান্টগুলি ক্যান্সার, ডায়াবেটিস এবং হৃদরোগ সহ  বিভিন্ন মারাত্মক রোগের বিরুদ্ধে সুরক্ষা দেয়।

টমেটোর উপকারিতা

টমাটো হল একটি শীতকালীন সবজি। বাজারে টকটকে লাল রঙ্গের টমাটো সকলের নজর টানে। এটি যেমন পুষ্টিকর তেমন খেতেও সুস্বাদু বটে। দৈনিক আহারে টমাটো আপনাকে রাখতেই হবে। এর বিজ্ঞানসম্মত নাম হলো- লাইকোপারসিন এসকুলেনটার।

পুষ্টিগুণ- টমেটোর উপকারিতা

পুষ্টি বিজ্ঞানীদের কথায় প্রতি ১০০ গ্রাম খাদ্যোপযোগী অংশে আছে-

কার্বোহাইড্রেট                                        ৩.৬ গ্রাম

লোহা                                                     ১.৮ মিগ্রা.                  

প্রোটিন                                                   ১.৯ গ্রাম                            

ক্যালসিয়াম                                            ২০ মিগ্রা.                   

ফ্যাট                               ০.১ গ্রাম, আঁশ-০.৭ গ্রাম

ফসফরাস                                             ৩৬ মিগ্রা.                  

ভিটামিন এ                                    ৩২০ আই. ইউ    

পটাসিয়াম                                             ১১৪ মিগ্রা.                  

থায়ামিন                                                .০৭ মিগ্রা.

ভিটামিন-সি                                           ৩১ মিগ্রা.                  

রিবোফ্লাবিন                                           .০১ মিগ্রা.

নিকোটিনিক এসিড                                ০.৪ মিগ্রা.                  

একটি বড় মাপের পাকা টমেটো থেকে আপনি ১২ ক্যালোরি শক্তি পেতে পারেন। টমেটো শীতকালীন সবজি মৌসুমে এর দাম খুবই কম থাকে, তাই চাইলেই যে কেউ এটি কিনে প্রতিদিনের খাবারে অন্তর্ভূক্ত করতে পারে।

টমেটোর উপকারিতা

চলুন টমেটোর উপকারিতা গুলো জেনে নি!

  • একটি করে টাটকা পাকা টমেটো দুপুরে ভাত খাওয়ার আগে খোসা ও বীজ সহ কাঁচা কামড়ে খেলে এবং রাতে ঘুমানোর আগেও একইভাবে খেলে কোষ্ঠকাঠিন্য কিছু দিনের মধ্যে দূর হয়ে যাবে।
  • টমেটো রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করেটমেটোতে থাকা লাইকোপেন রক্তচাপ কমাতেও দেখিয়েছে। টমেটোতে পটাশিয়াম সমৃদ্ধ, এটি একটি খনিজ যা রক্তচাপের মাত্রা হ্রাস করে
  • টমেটোর উপকারিতা  যাদের ওজন কম তারা যদি নিয়ম করে প্রতিদিন একটা পাকা টমেটো খেতে পারেন তাহলে ওজন বৃদ্ধি পেতে পারে।
  • ফ্যাকাসে চেহারার ব্যক্তিদের প্রতিদিন একটি করে পাকা টমেটো খাওয়া দরকার। এতে রংগে লাবন্যতা  আসবে ও রক্ত কণিকা বাড়তে থাকবে।
  • টমেটো ত্বক এবং চুলের স্বাস্থ্যের উন্নতি করে। টমেটো বেশিরভাগ সৌন্দর্য চিকিত্সার একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। এগুলি বড় ছিদ্র নিরাময়, ব্রণ এর চিকিত্সা, রোদে পোড়া উপশম এবং নিস্তেজ ত্বকে পুনরজ্জীবিত করতে সহায়তা করে। টমেটোতে অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট বিশেষত লাইকোপেন সেলুলার ক্ষতি এবং ত্বকের প্রদাহের বিরুদ্ধে লড়াই করে।
  • অর্জুন গাছের চামড়ার সাথে চিনি মিশিয়ে ট্মেটোর রসের মিক্সার তৈরি করে নিয়মিত খেলে বুকের ব্যাথা বা হার্টের অসুখে উপকার পাওয়া যায় এবং দূর হয়ে যায়।
  • পাকা টমেটোর রসে আর মধু মিশিয়ে খেলে রক্তপিত্ত এবং রক্তবিকার (রক্তের দোষ) সেরে যায়।
  • ডেইলি টেলিগ্রাফের মতে, দিনে মাত্র দু’গ্লাস টমেটোর রস খেলে আপনার হাড় মজবুত হয় এবং অস্টিওপরোসিস প্রতিরোধ করতে পারে। তবে, যে গবেষণাটি ফলাফল নিয়ে এসেছিল তা বড় আকারে করা হয়নি, যে কারণে এই ক্ষেত্রে আরও গবেষণা করা দরকার। তবুও, সম্ভাবনাগুলি আশাব্যঞ্জক। টমেটোর উপকারিতা
  • পাকা টমেটোর এক কাপ রস প্রতিদিন নিয়ম করে খেলে অন্ত্রের ভেতরে আটকে থাকা মল নিষ্কাশিত হয়ে যায় এবং এইভাবে পুরানো কোষ্ঠকাঠিন্য সেরে যায়।
  • এক কাপ ভাল নারকেল তেল এবং আধ কাপ টমেটোর রস একসাথে মিশিয়ে শরীরে মালিশ করে কিছুক্ষন রেখে হালকা গরম পানিতে গোসল করলে শরীরের চুলকানি সেরে যায়।
  • মাথার খুশকি তে আধকাপ ভাল নারকেল তেল এবং ১/৪ কাপ ট্মেটোর রস মিশিয়ে মালিশ করলে উপকার পাবেন।

আরো পড়ুন-

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *