ত্বক ফর্সা করার ঘরোয়া উপায়

সহজে ত্বক ফর্সা করার ১০ টি ঘরোয়া উপায় জেনে নিন!

ত্বক ফর্সা করতে অনেকেই বেশ উদ্বিগ্ন। মেয়েরা তো বটেই। কিন্তু অনেকেই ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে বিভিন্ন কেমিক্যাল ব্যবহার করে থাকেন। ফলে দেখা যায় ত্বকের নানান সমস্যা। তাই ত্বক ফর্সা করার ঘরোয়া উপায় জানাটা অতিব জরুরি। এতে কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ছাড়ায় ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি সম্ভব।

তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক, ত্বক ফর্সা করার ঘরোয়া কিছু পন্থা।

ত্বক ফর্সা করার ঘরোয়া উপায়

ত্বক ফর্সা করার ১০টি কার্যকরি পন্থা 

গায়ের রং উজ্জ্বল করার প্রত্যাশা প্রায় সবারই। কিন্তু বিভিন্ন ক্রিম ব্যবহার এর ফলে ত্বক নষ্ট হয়ে যায়। এছাড়াও ত্বকের নানা ধরণের রোগ দেখা দেয়। এক্ষেত্রে ত্বক ফর্সা করার ঘরোয়া উপায় অবলম্বন করলে ত্বকের কোনো ধরণের ক্ষতি হওয়ার ভয় থাকে না।

চলুন দেখে নেওয়া যাক ঘরোয়া পদ্ধতিতে ত্বক ফর্সার ১০টি কার্যকরি উপায়। 

গুঁড়া দুধ ও লেবুর রসের ফেস প্যাক:

প্রথমে পাত্রে ১ চা চামচ গুঁড়া দুধ, ২ চা চামচ লেবুর রস এবং ১/২ চা চামচ মধু একসাথে ভালোভাবে মিশিয়ে নিতে হবে। এবার পুরো ত্বকে প্যাকটি লাগিয়ে নিন। এবং ১০ থেকে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর উষ্ণ গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত এই প্যাক ব্যবহার এর ফলে ত্বকে ব্রনের সমস্যাও দূর হয়। এই প্যাকটি ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করতে অধিক কার্যকারি। 

টক দই আর ওট মিলের হোয়াইটেনিং ফেসপ্যাক:

একটি পাত্রে ১ টেবিল চামচ ওট মিল সারারাত ভিজিয়ে রাখুন। এরপর সকালে ভিজিয়ে রাখা ওট মিলের পেস্ট করে এর সাথে ১ টেবিল চামচ টক দই মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। তারপর এটি মাস্ক এর মতো সমস্ত মুখমন্ডলে লাগিয়ে নিন। এবং ১৫ থেকে ২০ মিনিট পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। নিশ্চিতভাবে ত্বক ফর্সা করার কার্যকরি উপায় এটি। ত্বকের জন্য এই প্যাক বেশ উপকারি।

আলুর খোসার ফেস প্যাক:

আলুর খোসায় পরিমাণ মতো ব্লিচিং উপাদান থাকায় তা ত্বকের জন্য বেশ উপকারি। প্রথমে একটি পাত্রে আলু খোসার পেস্ট তৈরি করে নিবেন। এরপর ত্বকে পেস্টটি লাগিয়ে ১০ থেকে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করুণ। নিয়মিত ব্যবহারে ত্বক দ্রুত উজ্জ্বল হয়ে উঠবে। মুখের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধির ৯টি ঘরোয়া উপায় জানুন!

হলুদ আর টমেটোর ফেস প্যাক:

একটি পাত্রে এক চিমটি হলুদ, ১ চা চামচ টমেটো এবং ১চা চামচ লেবুর রস একসাথে ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। তারপর তা ত্বকে লাগান এবং ১৫ থেকে ২০ মিনিট এর মতো অপেক্ষা করুন। এরপর তা ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাক সপ্তাহে অন্তত ২বার ব্যবহার করুন। এটি ত্বক ফর্সা করার পাশাপাশি ত্বকের তৈলাক্ত ভাব দূর করে।

আমন্ড অয়েল ও বাটার মিল্ক ফেসপ্যাক:

একটি পাত্রে ৪-৫ টি আমন্ড সারারাত ভিজিয়ে রাখুন। এবং তারপর গুঁড়া করে পেস্ট তৈরি করে তারসাথে বাটার মিল্ক মিশিয়ে নিন। এরপর প্যাকটি ত্বকে লাগান। এবং ১০ থেকে ১৫ মিনিট এই প্যাক ত্বকে লাগিয়ে রাখুন। এরপর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাকটি ত্বকে খুব দ্রুত উজ্জ্বলতা এনে দেয়। এটি আপনার ত্বককে নরম করতে, এবং ত্বকের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে।

বেসনের ফেস প্যাক:

প্রথমে বেসনের সাথে অল্প পরিমানে বাটার মিল্ক মিশিয়ে পেস্ট বানিয়ে নিন। এবং এরপর তা ত্বকে লাগান এবং শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। শুকুশে গেলে তা ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। বেসন ত্বকের রঙ উজ্জ্বল করতে এবং ত্বকের ময়লা দূর করতে বেশ কার্যকরি।

পুদিনা পাতার ফেস প্যাক:

পুদিনা পাতায় বিদ্যমান অ্যাসট্রিজেন্ট ত্বকে পুষ্টি যোগানোর সাথে সাথে ত্বকে উজ্জ্বল করে তুলে। প্রথমে একটি পাত্রে ১৫ থেকে ২০ টি পুদিনা পাতা পেস্ট করে নিন। এবং তা দিয়ে মুখে ভালোভাবে ম্যাসাজ করুন। এবং পুরো ত্বকে পেস্টটি লাগিয়ে ১৫ থেকে ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। তারপর তা উষ্ণ গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি ত্বককে টান টান করে রাখতে এবং ত্বকের উজ্জ্বলতা সৃষ্টিতে বিশেষ ভূমিকা রাখে। 

কলার ফেস প্যাক:

প্রথমে একটি পাত্রে ১টি কলা, ১ চা চামচ মধু ও ১ টেবিল চামচ টক দই মিশিয়ে নিন। তারপর তা ভালোভাবে ত্বকে লাগান। এবং প্যাকটি দেওয়ার পর তা শুকানোর জন্য অপেক্ষা করুণ।  এই প্যাকটি ত্বকের তৈলাক্ত ভাব দূর করে ত্বককে ফর্সা করে তুলে।

চন্দনের ফেস প্যাক:

প্রথমে চন্দনের গুড়ার সাথে পানি মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। এবং তা ভালোভাবে ত্বকে লাগিয়ে নিন। এবং ১০ থেকে ১৫ মিনিট পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাক সপ্তাহে ২বার ব্যবহার করার চেষ্টা করুন। ত্বকে প্রাকৃতিকভাবেই ফর্সা করে তুলবে এই প্যাক।

কাঁচা হলুদেএলোভেরার ফেস প্যাক:

ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে কাঁচা হলুদের ব্যবহার অনেক আগে থেকে হয়ে আসছে। প্রথমে একটি পাত্রে ২চা চামচ কাঁচা হলুদ বাটা, ২চা চামচ চালের গুরা, ৪চা চামচ তরল দুধ এবং ১চা চামচ এলোভেরা ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। তারপর তা পর্যাপ্ত পরিমাণে ত্বকে লাগিয়ে নিতে হবে। এবং ২৫ থেকে ৩০ মিনিট পর  তা ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাক ত্বককে উজ্জ্বল করতে বেশ কার্যকরি। ত্বকের যত্নে মুলতানি মাটির ১২টি উপকারিতা ও অপকারিতা জেনে নিন!

শেষকথা

উজ্জ্বল সুন্দর ত্বকের অধিকারী হতে ত্বক ফর্সা করার ঘরোয়া উপায় মেনে চলাই শ্রেয়। আশা করি, উপরোক্ত ১০টি উপায় অবলম্বন করে আপনি ত্বক উজ্জ্বল ও সুন্দর করে তুলতে সক্ষম হবেন। এবং অবশ্যই ত্বকের যত্ন নিতে ভুলবেন না।  

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top