বাড়িতে জিম করার নিয়ম -নিজেকে রাখুন ১০০% ফিট!

বাড়িতে জিম করার নিয়ম -জিম করতে কার না মন চায়। নিজেকে সুস্থ্য এবং ফিট রাখতে জিম করা বা ব্যায়ামের বিকল্প নেই।

অনেকের পক্ষেই প্রতিদিন জিমে যাওয়া সম্ভব হয় না। যারা চাকুরীজিবি আছেন তাদের জন্যে তো খুবই কঠিন একটি ব্যাপার হলো জিমে যাওয়ার সময় বের করা। আর অনেকের ক্ষেত্রে পর্যাপ্ত সময় থাকলেও আর্থিক সমস্যার কারনে জিমে যাওয়া হয়ে উঠে না।

আচ্ছা আপনি কি কখনো ভেবে দেখেছেন, আপনি চাইলে আপনার বাড়িতেই জিম শুরু করতে পারেন। জি হ্যা ঠিকই বলছি। তাহলে চলুন জেনে নি বাড়িতে জিম করার নিয়ম

বাড়িতে জিম করার নিয়ম-

আপনি ইচ্ছে করলেই বাড়িতে জিম বা ব্যায়াম আজ থেকেই শুরু করে দিতে পারেন। যে কোন জিনিস শুরু করার জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো ইচ্ছেশক্তি। আর সফলতা পেতে হলে অবশ্যই আপনাকে কঠোর পরিশ্রম করতে হবে।

বাড়িতে জিম করার নিয়ম এবং যেভাবে শুরু করতে পারেন,চলুন জেনে নি-

#১ স্ট্রেসিং এবং ওয়ার্ম-আপ (stressing and warm-up)

শুরুতেই আমরা যেই ভুল টা করি তাহলো প্রথমেই ওয়েট লিফটিং বা ভারী ইক্যুয়েপমেন্ট দিয়ে জিম করা শুরু করি। যা একেবারেই ভুল, এটি করা উচিত নয়।

জিম বা ব্যায়াম শুরু করার আগে কিছুক্ষন হাঁটুন বা হালকা রানিং করে নিন। এরপর আপনার বডি স্ট্রেস করে ওয়ার্ম-আপ করুন। বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই আমরা এই ভুল টি করে থাকি। এটি করা চলবে না, অবশ্যই জিম করার পূর্বে স্ট্রেসিং এবং ওয়ার্ম-আপ করে নিতে ভুলবেন না।

  #2 স্কিপিং বা দড়ি লাফ (SKIPPING)

এবার স্কিপিং বা দড়িলাফ শুরু করুন। প্রথমে না পারলে হতাশ হবেন না। ধীরে ধীরে গতি বাড়ান। একটা টার্গেট ঠিক করুন। সাপ্তাহে ৪-৫ দিন এটি করুন।

প্রতিদিন ৫-১০ মিনিট আপনার ব্যায়ামের রুটিনে স্কিপিং বা দড়িলাফ রাখুন।

স্ট্যান্ড জগিং (STAND JOGGING) #৩ বাড়িতে জিম করার নিয়ম

স্ট্যান্ড  জগিং বলতে বোঝায় এক যায়গায় বা স্থানে দাঁড়িয়ে জগিং করা। এর জন্য কোন যন্ত্র বা মেশিনের প্রয়োজন নেই। এই ব্যায়াবের ফলে শরীরের বাড়তি মেদ ঝরে যায়। এটি আপনি প্রতিদিন ৫-১০ মিনিট করার চেষ্টা করুন।

আরো পড়ুন-

#৪ পুশ-আপ (PUSH-UP)

বাড়িতে জিম করার নিয়ম


পুশ-আপ একটি জনপ্রিয় ব্যায়াম। এটি আপনার বডির স্ট্রাকচার গঠনে দারূণ ভাবে সহায়তা করে। আপনার হাতের পেশির শক্তি বৃদ্ধি করে। নিয়মিত পুশ-আপ দিতে থাকলে খুব শীঘ্রই আপনি আপনার শরীরের পরিবর্তন দেখতে পাবেন।

প্রথম দিন ১০-১৫ টি পুশ-আপ দিয়ে শুরু করুন। প্রতিদিন ধীরে ধীরে পরিমান বাড়াতে থাকুন।

#৫ স্কোয়াট- বাড়িতে জিম করার নিয়ম

এটি  খুবই কার্যকারি একটি ব্যায়াম। প্রতিদিন ১৫ থেকে ২০ বার হতে পারে আপনার জন্য আদর্শ ব্যায়ামপেট কমানোর সহজ ব্যায়াম বলা হলেও এটি তুলনামূলক ভাবে একটু কঠিন তাই কষ্ট হলেও করতে থাকুন কিছুদিনের মধ্যেই ফলাফল দেখতে পাবেন।

কোবরাস (Cobras)- #৬ বাড়িতে জিম করার নিয়ম

এটি দেখতে অনেক টা পুশ-আপ এর মতই কিন্তু এটি তার থেকেও সহজ এবং বেশি কার্যকারি। প্রতিদিন ৩৫ থেকে ৪০ টি হতে পারে আপনার আপনার জন্য অনেক উপকারি। তাই দেরি না করে এখনি শুরু করে দিন।

#৭ -রাশিয়ান টুইস্ট (Russian Twist)

বাড়িতে জিম করার নিয়ম

এই ব্যায়াম সম্পর্কে খুব কম মানুষই জানে। পেটের সেরা ব্যায়াম গুলোর মধ্যে এটি অন্যতম। প্রতিদিন ৫ থেকে ১০ মিনিট এই ব্যায়াম করুন। এটি নিয়মিত করলে খুব দ্রুতই আপনার পেটে সিক্স প্যাক আসবে

প্লাংক (Plank) #৮ বাড়িতে জিম করার নিয়ম

শরীরের ভারসাম্য রক্ষায় এর থেকে ভালো ব্যায়াম আর নেই। এটি আপনার শরীরের স্ট্রাকচার গঠনে সহায়তা করবে। যদি আপনি এই ব্যায়ামে নতুন হয়ে থাকেন তাহলে ৩০ সেকেন্ড থেকে শুরু করুন। ধীরে ধীরে সময় বাড়ান,মনে রাখবেন যত বেশি সময় নিয়ে এই ব্যায়াম করবেন ততোই আপনার শরীরের জন্য ভাল।

শেষ কথা

আমরা অবশ্যই ওয়েইট লিফটিং এর পরামর্শ দিতে পারি না। কেননা ট্রেইনার ছাড়া ভারি জিনিস দিয়ে ব্যায়াম করা খুবই বিপজ্জনক হতে পারে।

লেখক- রাফসান জানি

আরো পড়ুন-

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *