মুলতানি মাটির উপকারিতা

ত্বকের যত্নে মুলতানি মাটির ১২টি উপকারিতা ও অপকারিতা জেনে নিন!

crickex banner ad

মুলতানি মাটির উপকারিতা উজ্জ্বল ও দাগহীন ত্বক পেতে ভীষণ উপযোগী। রূপচর্চায় ভালো ফল পেতে মুলতানি মাটির জনপ্রিয়তাও অনেক। তাই আজকের আর্টিকেলে আমরা মুলতানি মাটির বিভিন্ন উপকারিতা এবং এর ব্যবহার সম্পর্কে জানবো। 

মুলতানি মাটির উপকারিতা

ত্বকের যত্নে মুলতানি মাটিতে রয়েছে প্রয়োজনীয় সকল উপাদান। এটি ত্বকের জন্য খুবই কার্যকর। মুলতানি মাটিতে রয়েছে আয়রন, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, সিলিকা, কোয়ার্টজ এবং ক্যালসাইটের মতো উপকারী খনিজ পদার্থ। রূপচর্চার পাশাপাশি চুলের যত্নেও এটি বেশ উপকারী। 

তাহলে আসুন মুলতানি মাটির উপকারিতা সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিই।

ত্বক পরিষ্কার করতে  

মুলতানি মাটি ত্বকের ক্লিনজার হিসেবে কাজ করে। এর সাথে চন্দন গুড়ো, ওটোমিল, বেসন, হলুদের গুড়ো, নিমের গুড়ো ও গোলাপ জল মিশিয়ে প্রতিদিন গোসলর পূর্বে মুখে লাগান। দেখবেন খুব দ্রুতই ত্বক পরিষ্কার হবে। 

ব্রনের সমস্যা দূর করে 

মুলতানি মাটি ব্রনের সমস্যাও দূর করে থাকে। ত্বকে অতিরিক্ত ব্রন হলে কিছু নিমপাতা বেটে মুলতানি মাটির সঙ্গে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। এরপর মুখে লাগিয়ে ১৫ থেকে ২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। এতে লোমকূপের ময়লা ভেতর থেকে পরিস্কার হবে এবং ব্রনের সংক্রমন কমে যাবে। 

ত্বকের শুষ্কতা দূর করতে 

মুলতানি মাটি ত্বকের শুষ্কতা দূরে রাখে। এতে উপস্থিত এন্টিব্যাক্টেরিয়াল উপাদান ত্বকের আদ্রতা ধরে রাখতে সাহায্য করে এবং ত্বককে বিভিন্ন সংক্রমণ হতে মুক্তি দেয়। 

মুলতানি মাটির সাথে তিন থেকে চারটি আঙ্গুরের রস মিশিয়ে ত্বকে ব্যবহার করুন। এতে শুষ্ক ত্বক দূর হবে। 

উজ্জ্বল ত্বক পেতে 

উজ্জ্বল ত্বক পেতে নিয়মিত মুলতানি মাটির  ব্যবহার করা আবশ্যক। পরিমাণ মতো মুলতানি মাটি, হলুদের গুড়ো, চন্দনের গুড়ো এবং টমেটোর রস একসাথে মিশিয়ে ত্বকে লাগিয়ে রাখুন। ২০ থেকে ২৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দুই থেকে তিন দিন এই মিশ্রণ ব্যবহার করলে ত্বক ধীরে ধীরে উজ্জ্বল হয়ে উঠবে। 

ব্ল্যাকহেডস দূর করতে 

ব্ল্যাকহেডস দূর করতে মুলতানি মাটির ভূমিকা অনেক। কারণ মু্লতানি মাটিতে রয়েছে এক্সফলিয়েটিং উপাদান যা ত্বকের ব্লাকহেডস দূর করতে সক্ষম। এক্ষেত্রে মুলতানি মাটির সাথে ডাবের পানি মিশিয়ে ব্যবহার করুন। ব্ল্যাকহেডস দূর হবে। 

রোদে পোড়া দাগ দূর করে 

রোদে পোড়া দাগ দূর করার ক্ষেত্রে মুলতানি মাটির উপকারিতা বেশ। পরিমাণমতো মুলতানি মাটি, লেবুর রস ও একটা ভিটামিন ই ক্যাপসুল ভালো ভাবে মিশিয়ে ত্বকে লাগিয়ে ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। এটি নিয়মিত করতে থাকুন। আপনার ত্বকের রোদে পোড়া দাগ নিমিষেই দূর হয়ে যাবে। 

তৈলাক্ত ত্বকের জন্য  

মুলতানি মাটি তৈলাক্ত ত্বকের জন্য বেশ উপকারী। কারণ এটি ত্বকের অতিরিক্ত তেল চুষে নিতে সাহায্য করে। 

তৈলাক্ত ত্বক দূর করতে মুলতানি মাটির সাথে গোলাপ জল ও পরিমাণ মতো চন্দন গুড়ো মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। পেস্টটি মুখে লাগিয়ে রাখুন এবং শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।  

ত্বক টানটান করতে

মুলতানি মাটি নিয়মিত ব্যবহারে ত্বক টানটান হয়ে ওঠে। ১ চা-চামচ মুলতানি মাটি, ১ চা-চামচ টকদই এবং একটি ডিমের সাদা অংশ ভালো ভাবে মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি সারা মুখে লাগিয়ে ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাকটি ত্বক টানটান করতে এবং স্কিন টোন সমান করতে সাহায্য করে। 

হাত ও পায়ের রং ফর্সা করতে 

অনেকের মুখের রঙের সাথে হাত ও পায়ের রঙের পার্থক্য থাকে। মুখের চেয়ে হাত ও পা কালো হয়ে থাকে। এই সমস্যা দূর করতে পরিমাণ মতো মুলতানি মাটি, কাঁচা হলুদ বাটা ও বেসন একত্রে মিশিয়ে একটি প্যাক তৈরি করুন। এবার প্যাকটি হাত ও পায়ে ভালো ভাবে লাগিয়ে আধাঘন্টা অপেক্ষা করুন। 

কিছুক্ষণ পর কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। প্যাকটি গোসলের আগে নিয়মিত ব্যবহার করলে হাত ও পায়ের ত্বক ফর্সা হবে। আপনার হাত পায়ের রং কি চেহারার মত ফর্সা? জেনে নিন হাত পা ফর্সা করার উপায়!

মসৃণ ত্বকের জন্য  

বিভিন্ন কারণে ত্বক তার মসৃণতা হারিয়ে ফেলে। ত্বককে মসৃণ করতে ১ টেবিল চামচ মুলতানি মাটি, ১ টেবিল চামচ টকদই এবং ডিমের সাদা অংশ একত্রে মিশিয়ে ঘন পেস্ট তৈরি করুন। এই পেস্ট মুখে লাগিয়ে ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাকটি আপনার ত্বককে মসৃণ করে তুলবে। 

চুলের যত্নে মুলতানি মাটি 

ত্বকের পাশাপাশি চুলের যত্নেও মুলতানি মাটি বেশ উপকারী। ৪ চা চামচ মুলতানি মাটি, আধাকাপ টকদই, ২ চা চামচ মধু এবং অর্ধেক লেবু মিশিয়ে একটি প্যাক তৈরি করুন। 

এই মিশ্রণটি গোসলের আগে সমস্ত চুলে ভালো ভাবে লাগিয়ে ৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর শ্যাম্পু দিয়ে ভালোভাবে ধুয়ে ফেলুন। প্যাকটি সপ্তাহে দুই দিন ব্যবহার করলে ভালো ফল পাবেন। 

মুলতানি মাটির অপকারিতা; যে বিষয়ে সাবধান থাকবেন

মুলতানি মাটি অতিরিক্ত ব্যবহারে হীতে বিপরীত হতে পারে। এছাড়াও এর অল্পকিছু অপকারিতা রয়েছে যা নীচে উল্লেখ করে দেওয়া হলো। 

  • অতিরিক্ত ব্যবহারে ত্বকে খারাপ প্রভাব পড়তে পারে। (উপরে উল্লিখিত পরিমাপে ব্যবহার করুন)
  • কখনো যদি এটি নাক অথবা মুখের মধ্যে চলে যায় তবে শ্বাসপ্রশ্বাস বন্ধ করে দিতে পারে। 
  • কারো কারো ক্ষেত্রে এটি ত্বকের বিপরীতে কাজ করতে পারে। এক্ষেত্রে ডাক্তারের পরামর্শ নিন। 

ভিডিওঃ শীতে ত্বকের যত্ন নিতে ৭টি ঘরোয়া টিপস | শীতকালীন রুপচর্চা

শেষ কথা 

পরিশেষে বলা যায়, মুলতানি মাটির উপকারিতা আমাদের ত্বকের জন্য বেশ কার্যকর। এটি প্রাকৃতিকভাবে ত্বকের যত্ন নেয়। তবে কারো ক্ষেত্রে মুলতানি মাটি ত্বকের বিপরীতে কাজ করলে অবশ্যই ত্বক বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নিন।

আপনার মনে কোন প্রশ্ন থাকলে এখানে করুন!

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top