মৌরির উপকারিতা

মৌরির উপকারিতা ও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া জেনে নিন!

মৌরির উপকারিতা – মৌরি চেনেন না এমন মানুষ হয়তো খুঁজে পাওয়া বিরল। খাওয়া শেষে মৌরি খেতে অনেকেই ভীষণ ভালোবাসেন। আর বিয়ে বাড়ি বা রেস্তোরাঁ হলে তো কোনো কথায় নেই, খাওয়া শেষে হাত সোজা চলে যায় মৌরির প্লেটে।

মসলা হিসেবে মৌরির ব্যবহার থাকলেও এর আছে বিপুল গুনাবলি। তবে মৌরির উপকারিতা অনেকেরই অজানা। নিয়মিত মৌরি খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুললে পাবেন অবিশ্বাস্য উপকারিতা।

মৌরির পরিচয় 

মৌরি হলো গাঁজর পরিবারের হলুদ ফুলের গাছ। অনেকেই মৌরিকে জিরা ভেবে ভুল করে বসেন। মৌরি গাছ থেকে মৌরি বীজ হয় যা দেখতে সাধারণত সবুজ বা বাদামী রঙের হয়। এর আছে মিষ্টি স্বাদ আর উষ্ণ সুগন্ধ যা মাউথ ফ্রেশার হিসেবে কার্যকরী ভূমিকা পালন করে মুখ থেকে খাবারের গন্ধ দূর করতে সক্ষম।

মৌরি পটাশিয়াম, ক্যালসিয়াম, জিঙ্ক, ম্যাংগানিজ, ভিটামিন সি, আয়রন, সেলেনিয়াম আর ম্যাগনেশিয়াম সমৃদ্ধ বীজ। এছাড়াও,  মৌরিতে রয়েছে অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল উপাদান যা শরীরের রোগ- প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সক্ষম।

মৌরির উপকারিতা 

উচ্চরক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ ও রক্ত পরিশুদ্ধকরণ

নিয়মিত মৌরি খাওয়ার ফলে শরীরে নাইট্রেট নামক উপাদানের পরিমাণ বেড়ে যায় যা উচ্চরক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এছাড়াও, মৌরিতে রয়েছে তেল ও ফাইবার যা শরীরের বিষাক্ত পদার্থ দূর করে রক্ত পরিষ্কার রাখে। হৃৎস্পন্দন নিয়ন্ত্রণে রাখতেও মৌরি বেশ কার্যকর।

শ্বাসযন্ত্রের সমস্যা দূর করে

মৌরিতে থাকা ফাইটোনিউট্রিয়েন্ট সাইনাসের সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে। এছাড়াও ফাইটোনিউট্রিয়েন্ট অ্যাজমা রোগেও বেশ কার্যকরী। শ্বাস কষ্ট, অ্যাজমা, ব্রংকাইটিস, সর্দি- কাশিসহ শ্বাসযন্ত্রের যাবতীয় সমস্যা সমাধানে মৌরি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

শরীর ঠান্ডা রাখে

মৌরিতে এমন কিছু আয়ূর্বেদিক উপাদান রয়েছে যা গরমে শরীর ঠান্ডা রাখে। অনেকেরই শরীর, হাত,পা জ্বালা-পোড়া করে। মৌরি তেল মালিশে জ্বালা-পোড়া কমে স্নায়ু ও মনে প্রশান্তি এনে দেয়।

দৃষ্টিশক্তি উন্নত করে

মৌরি হলো ভিটামিন এ এবং বেটা ক্যারাটিনের বিপুল ভান্ডার যা দৃষ্টিশক্তি উন্নত করে। এছাড়াও, নিয়মিত মৌরির চা পানে গ্লুকোমা নামক চোখের সমস্যা দূর হয়।

নিঃস্বাসের দুর্গন্ধ দূর করে

মাউথ ফ্রেসনার হিসেবে যেন মৌরি ভীষণ কার্যকর। মৌরির আছে নিজস্ব সুগন্ধ তৈরিকারী উপাদান যা নিঃস্বাসের গন্ধ দূর করে আপনাকে  ফ্রেস রাখতে সক্ষম।

হজমশক্তি বৃদ্ধি ও কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে

রাতে একগ্লাস পানিতে মৌরি ভিজিয়ে সেই পানি সকালে খালি পেটে খেলে পেটের নানাবিধ সমস্যা যেমন গ্যাস, বদহজম, কোষ্ঠ্যকাঠিন্য ইত্যাদি সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। এছাড়াও, খাবারে রুচি বৃদ্ধিতে মৌরির গুরুত্ব অনেক।

ওজন কমাতে সাহায্য করে

মৌরি শরীরের অতিরিক্ত চর্বি ঝরিয়ে ওজন কমাতে সাহায্য করে। মৌরি বীজ ভেজানো পানি শরীরের বিপাক ক্রিয়ার হার বাড়ায় যা দ্রুত চর্বি ঝরিয়ে শরীরের বাড়তি ওজন কমাতে সক্ষম। 

ত্বক ও চুলের সমস্যা দূর করে

মৌরিতে রয়েছে অ্যান্টিবায়োটিক ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট  যা ত্বকের সংক্রমণ রোধ করে ত্বককে ব্রন এবং অন্যান্য সমস্যা থেকে রক্ষা করে। এছাড়াও, মৌরির বীজে থাকা  আয়রণ, ভিটামিন ডি, ক্যালসিয়াম,জিংক, সেলেনিয়াম ত্বক সুস্থ রাখে, ত্বকের ঔজ্জ্বল্য বৃদ্ধি করে এবং চুল পড়া বন্ধ করে চুলকে শক্তিশালী করে।

ক্যান্সার চিকিৎসায়

ক্যান্সার প্রতিরোধে মৌরি বেশ কার্যকর। ত্বক, স্তন ও পেটের ক্যান্সার প্রতিরোধের জন্য মৌরিতে রয়েছে গুরুত্বপূর্ণ উপাদান যা শরীরে ক্যান্সার কোষ ছড়িয়ে পড়া রোধ করে। 

>> কিডনি রোগের ঘরোয়া চিকিৎসা জেনে নিন!

মৌরির পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া

মৌরি বীজ থেকে তেল পাওয়া যায় আর সব ধরনের প্রাকৃতিক তেলে কিছু শক্তিশালী রাসায়নিক উপাদান  থাকে। এসব তেল শরীরে কিছু ক্ষতিকর প্রভাব ফেলতে পারে। তাই মৌরির অনেক উপকারী গুন থাকা সত্ত্বেও বেশি পরিমানে না খাওয়ার ভালো। এছাড়াও, অতিরিক্ত মৌরি খাওয়ার ফলে এলার্জিক রিয়েকশনও দেখা দিতে পারে। 

মৌরির উপকারিতা জেনে মৌরি কে আয়ুর্বেদিক শাস্ত্রে “মঙ্গলকর” নামে আখ্যায়িত করা হয়েছে। নিয়মিত মৌরির চা অথবা মৌরি বীজ ভেজানো পানি পান করলে  আপনার শরীরের কিছু সাধারণ সমস্যা যেমন বায়ুরোগ, মুখের প্রদাহ, কৃমি, শরীরে পানি জমে যাওয়া ও প্রস্রাবে জ্বালা-পোড়া ইত্যাদি থেকে খুব সহজেই মুক্তি পাবেন।

শেয়ার করুন-

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top