হাতের পেশি মোটা করার সহজ উপায় – ৭ টিপস থাকুন ১০০% ফিট!

হাতের পেশি মোটা করার সহজ উপায় – প্রত্যেক মানুষই চায় ১০০% ফিট থাকতে। আর শতভাগ ফিট থাকতে হলে অবশ্যই সুন্দর স্বাস্থ্য এবং সুস্থ্য স্বাভাবিক একটি দেহ আমাদের প্রয়োজন।

 আমরা যারা শুকনো শরীরের অধিকারী, আমাদের স্বাস্থ্যবান, সুস্থ্য এবং ১০০% ফিট দেহ পেতে হলে সঠিক নিয়মে খাওয়া-দাওয়া করতে হবে। প্রতিদিন ৬-৮ ঘন্টা নিয়ম করে ঘুমাতে হবে। পুষ্টিকর খাবার খেতে হবে।

এগুলোর পাশাপাশি হাতের পেশি মোটা করার সহজ উপায় হ’ল নিয়ম মাপিক ব্যায়াম করা। তাই আজকে আমরা এমন ৭ টি ব্যায়াম নিয়ে কথা বলবো, যেগুলো আপনার হাতের পেশি মোটা করার পাশাপাশি আপনার শরীর ফিট রাখাবে এবং সুন্দর বডি গঠনে সহায়তা করবে।

চলুন শুরু করা যাক –

১)পুশ-আপঃ

হাতের পেশি মোটা করার সহজ উপায়


এটি একটি জনপ্রিয় ব্যায়াম। এটি আপনার বডির স্ট্রাকচার গঠনে দারূণ ভাবে সহায়তা করে। আপনার হাতের পেশির শক্তি বৃদ্ধি করে। নিয়মিত পুশ-আপ দিতে থাকলে খুব শীঘ্রই আপনি আপনার শরীরের পরিবর্তন দেখতে পাবেন।

প্রথম দিন ১০-১৫ টি পুশ-আপ দিয়ে শুরু করুন। প্রতিদিন ধীরে ধীরে পরিমান বাড়াতে থাকুন। দেখবেম আপনার হাতের পেশি বৃদ্ধি পাবে।

২)আর্ম সার্কেলঃ

এটি নিয়মিত করলে আপনার হাতের পেশি বৃদ্ধি পাবে। প্রথমে সোজা হয়ে দাঁড়ান, এবার আপনার কাঁধ বরাবর দুই হাত দুই দিকে সোজা করুন। ডান হাত ডানে এবং বাম হাত বামে। এবার একটি সার্কেল তৈরি করুন। দুই হাত একই সাথে প্রথমে সামনের দিকে ঘুরাতে থাকুন ১৫ -২০ বার। ঠিক একই ভাবে পিছনের দিকে ঘুরান। এভাবে সাপ্তাহে ৪/৬ দিন করুন।

৩) ট্রাইসেপ ডিপসঃ

হাতের পেশি মোটা করার সহজ উপায়

এটি করতে হলে আপনার একটি চেয়ার এর প্রয়োজন। নিচের ছবিটাকে ফলো করুন। পা একই জায়গায় রেখে হাত এবং কোমর ধীরে ধীরে উঠানামা করুন ১৫-২০ বার। সাপ্তাহে ৫/৬ দিন করতে থাকুন। পরিবর্তন দেখতে পাবেন।

৪)মাউন্টেন ক্লিমবারঃ

হাতের পেশি মোটা করার সহজ উপায়

এটি অত্যন্ত উপকারি একটি ব্যায়াম। শুরু করতে পুশ-আপের পজিশন নিন। নিচের ছবি লক্ষ্য করুন। মাউন্টেন ক্লিমবারে হাত সোজা থাকবে নিচে নামবে না। ডান পা বাঁকিয়ে বুকের কাছে আনুন এবং বাম পা সোজা রাখুন। একই ভাবে বাম পা ও করুন। হাতের পেশি মোটা করার সহজ উপায় গুলোর মধ্যে এটি অনেক উপকারি।

৬) বক্সিং

বক্সিং হাতের পেশি মোটা করার সহজ উপায় গুলোর মধ্যে অন্যতম। বিভিন্ন ভাবে আপনি এটি করতে পারেন। সোজা দাঁড়িয়ে বেশ কয়েকবার (৫০-৬০) পাঞ্চ করুন। প্রয়োজনে আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে করুন। আর যদি আপনার কাছে বক্সিং গ্লাভস থাকে তাহলে তো আরো ভাল। নিঃসন্দেহে এটি আপনার হাতের পেশি বৃদ্ধি করতে সহায়তা করবে।

৭)প্লাংক

শরীরের ভারসাম্য রক্ষায় এর থেকে ভালো ব্যায়াম আর নেই,এটি আপনার হাতের পেশি বাড়াতে সহায়তা করবে। যদি আপনি এই ব্যায়ামে নতুন হয়ে থাকেন তাহলে ৩০ সেকেন্ড থেকে শুরু করুন।ধীরে ধীরে সময় বাড়ান,মনে রাখবেন যত বেশি সময় নিয়ে এই ব্যায়াম করবেন ততোই আপনার শরীরের জন্য ভাল।

আরো পড়ুন- বাড়িতে জিম করার নিয়ম -নিজেকে রাখুন ১০০% ফিট!

শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *