Finix 20

FINIX 20 কী? এর উপকারিতা ও অপকারিতা জানুন!

Finix 20 ট্যাবলেট গ্যাস্ট্রিক প্যারাইটাল কোষের ক্ষমতাকে বাধা দেওয়ার মাধ্যমে এসিড নিঃসরণ বন্ধ করে। এই এনজাইমকে প্যারাইটাল কোষের প্রােটন পাম্প বলা হয়। 

আজকের লেখনীতে আমরা Finix 20 এর ব্যবহার-বিধি,উপকার এবং অপকারিতাসহ বিস্তারিত আরো অনেক কিছু জানবো।

Finix 20 এর উপকারিতা

গ্যাসজনিত সমস্যার ফলে আমাদের গলা বা বুক জ্বালাপোড়া করে থাকে এবং পেট ব্যাথা হয়ে থাকে। গ্যাস্ট্রো-রেজিস্ট্যান্ট ট্যাবলেট নিম্নবর্ণিত চিকিৎসায় বেশ উপকারী:

১. সক্রিয় ডিওডেনাল আলসার। 

২. সক্রিয় ঝুঁকিমুক্ত পাকস্থলির আলসার। 

৩. পাকস্থলি ও খাদ্যনালীর ক্ষয় সৃষ্টিকারী।

৪. আলসারেটিভ রিফ্লাক্স রােগ। 

৫. পাকস্থলি ও খাদ্যনালীর রিফ্লাক্স রােগের দীর্ঘ মেয়াদী চিকিৎসায়। 

৬. মাঝারি থেকে তীব্র উপসর্গযুক্ত পাকস্থলি ও খাদ্যনালীর রিফ্লাক্স রোগের এর চিকিৎসায়।

৭. জলিনজার-এলিসন সিনড্রোম। 

৮. পাকস্থলির আলসার রােগে হেলিকোব্যাক্টার পাইলােরি নির্মূলে। 

Finix 20 ব্যবহারে সতর্কতা

যেকোনো পেট ব্যাথা বা গলা-বুক জ্বালাপোড়ার প্রেক্ষিতে নিজের খুশিমতো ফিনিক্স 20 ব্যবহার করা যাবেনা, এছাড়াও নিচের বিষয়গুলো খেয়াল করে Finix 20 ব্যবহার করতে হবে:

  • র‌্যাবিপ্রাজল জাতীয় ঔষধ অতিমাত্রায় ব্যবহারের প্রয়োজন নাই। ফিনিক্স 20 এর নির্দিষ্ট কোন এন্টিডট ও নেই। তাই র‌্যাবিপ্রাজল এর প্রোটিন বাইন্ডিং বেশি হওয়ায় তাড়াতাড়ি ডায়ালাইসিস করা যায় না। অতিরিক্ত মাত্রার চিকিৎসা, লক্ষণ ও সহকারী হওয়া উচিত।
  • খাদ্যনালীতে ম্যালিগন্যান্সির উপস্থিতির ফিনিক্স 20 মিলিগ্রাম গ্যাস্ট্রো-রেজিস্ট্যান্ট ট্যাবলেট দ্বারা চিকিৎসার মাধ্যমে উল্লেখ্যযােগ্যভাবে প্রতিরােধ করা যায় ন। সে কারনে ম্যালিগন্যান্সির সম্ভাবনা থাকলে Finix 20 দিয়ে চিকিৎসা শুরু করা থেকে বিরত থাকতে হবে।
  • দীর্ঘমেয়াদী চিকিৎসার ক্ষেত্রে বিশেষ করে এক বছর বা তারচেয়ে বেশি সময়ের হলে রােগীকে নিয়মিত পর্যবেক্ষণ করতে হবে।
  • Finix 20 উচ্চ মাত্রায় এবং অধিক সময় ধরে এক বছরের বেশী ব্যবহার করা হয় তাহলে হিপ, কজি এবং মেরুদন্ডের অস্থি ভাঙ্গার ঝুঁকি খানিকটা বৃদ্ধি পেতে পারে।
  • অবজারভেসন ষ্টাডিতে দেখা গেছে যে, প্রােটন পাম্প ইনহিবিটরগুলি ফ্র্যাকচারের সামগ্রিক ঝুঁকি ১০%-৪০% বাড়িয়ে তুলতে পারে। এসকল ঝুঁকি বৃদ্ধি অন্যান্য ঝুঁকির কারণও হতে পারে। 
  • Finix 20 ব্যবহারকারী রােগীদের ক্ষেত্রে অন্য প্রােটন পাম্প ইনহিবিটর অথবা সাবসটিটিউটেড বেনজিমিডাজলের সাথে পারস্পরিক অতিসংবেদশীলতার ঝুঁকি রয়েছে।
  • রােগীদেরকে সতর্ক করতে হবে যেন তারা গ্যাস্ট্রো-রেজিস্ট্যান্ট ফিনিক্স 20 ট্যাবলেটটি চুষে অথবা চূর্ণ করে না খেয়ে সম্পূর্ন গিলে খায়।
  • ক্ষেত্রবিশেষ ফিনিক্স 20 ব্যবহারে রক্তে মােট অনুচক্রিকার পরিমান এবং নিউট্রোফিলের পরিমাণ কমে  যাওয়ার প্রমাণ পাওয়া গেছে। 
  • ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালগুলিতে হেপাটিক এনজাইমে অস্বাভাবিকতা দেখা গেছে এমন রোগীর ক্ষেত্রে  ফিনিক্স 20 ব্যবহারে সতর্ক হতে হবে।
  • বেশিরভাগ ক্ষেত্রে যেখানে অল্টারনেটিভ এটিওলােজি শনাক্ত করা যায় না, সেখানে ফিনিক্স 20 বন্ধ করে সমাধান করা গিয়েছিল। 
  • যকৃতের গুরুতর সমস্যার রােগীদের চিকিৎসায় Finix 20 ব্যবহার সম্পর্কে কোনও ক্লিনিক্যাল তথ্য নেই। তাই Finix 20 মিলিগ্রাম ট্যাবলেট গুলির সাথে প্রথমে এই জাতীয় রােগীদের মধ্যে চিকিৎসা শুরু করার আগে প্রেসক্রাইবারকে সাবধানতা অবলম্বন করার পরামর্শ দেয়া হয়।

মিথস্ক্রিয়া

ফিনিক্স 20 এর বিপাক cytochrome P-450 এনজাইম সিস্টেম দ্বারা সম্পন্ন হয়। সুস্থ মানবদেহের উপর পরীক্ষায় দেখা গেছে যে র‌্যাবিপ্রাজলের সাথে অন্যান্য ঔষধ যা cytochrome P-450 সিস্টেম দ্বারা বিপাক ক্রিয়া সম্পন্ন হয়। যেমনঃ ওয়ারফেরিন ও থিওফাইলিন একক মাত্রায় সেবনে, শিরাপথে ডায়াজিপাম এবং ফেনিটোইন একক মাত্রায় তেমন কোন মিথষ্ক্রিয়া নেই।

সেবনবিধি

দৈনিক চিকিৎসায় ফিনিক্স 20 নির্দেশিত হলে ট্যাবলেট সকালে খাওয়ার আগে গ্রহণ করা উচিৎ। যদিও নির্দিষ্ট সময় খাবার গ্রহণের কোনটিই ফিনিক্স 20 সােডিয়ামের কার্যকলাপের উপর প্রভাব ফেলতে দেখা যায়নি। এই পদ্ধতিটি চিকিৎসার অনুবর্তিতা পালনে সহায়তা করে। রােগীদের সাবধান করে দেওয়া উচিৎ যে ফিনিক্স 20 ট্যাবলেট চিবানাে বা চুর্ণ না করে সম্পূর্ণ রূপে পানি দিয়ে গিলে ফেলা উচিৎ। 

গর্ভাবস্থাকালীন Finix 20 ব্যবহার

 গর্ভবতী মহিলাদের ফিনিক্স 20 ব্যবহারে প্রশাসনের কোনও তথ্য পাওয়া যায় নি। তবে গর্ভাবস্থাকালীন এই ড্রাগটি ব্যবহার করা উচিত, কেবল যদি পরিষ্কারভাবে প্রয়োজন হয়। ডাক্তার যদি পেসক্রাইব করেন তখন।

ফিনিক্স 20 মাতৃদুগ্ধে নিঃসৃত হয় কিনা তা এখনও জানা যায়নি।তবে নবজাতকের ক্ষতিকর ক্রিয়ার সম্ভাবনা ও রোগীর নিকট ঔষধের গুরুত্ব বিবেচনা করে ঔষধ সেবন বন্ধ বা দুগ্ধদান বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয়া উচিত।

অন্যান্য ওষুধের সাথে প্রতিক্রিয়া

গ্রাস্ট্রিক পিএইচ যেসব ঔষধের বায়োএভেলিবিলিটির জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ যেমন কিটোকোনাজল, আয়রন সল্ট, ডিগক্সিন ইত্যাদির শোষণ ফিনিক্স 20 দ্বারা বাধা-গ্রস্থ হতে পারে। র‌্যাবিপ্রাজল সাইট্রোক্রম দ্বারা মেটাবলিজম হয়, কিন্তু পরীক্ষায় দেখা গেছে অন্যান্য ঔষধ যেগুলো সাইটোক্রম পি 450 দ্বারা মেটাবলিজম হয় যেমন ওয়ারফেরিন, থিওফাইলিন, ডায়াজিপাম এবং ফিনাইটোইন এর সাথে উল্লেখযোগ্য কোন আন্তঃক্রিয়া দেখা যায়নি।

Finix 20 এর অপকারিতা

মাঝে মাঝে ফিনিক্স 20  ব্যবহারে সামান্য ক্ষতিকর প্রভাব দেখা যায়। যা কিনা জানা-শোনা বিরুপ প্রতিক্রিয়াগুলাের মধ্যেই সীমাবদ্ধ এবং কোন প্রকার চিকিৎসা ছাড়াই তা পুনরায় ঠিক হয়ে যায়। 

ফিনিক্স 20 সেবন করার পর সাধারণত যেসব পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যেতে পারে সেগুলো হচ্ছে-

  • ডায়রিয়া, 
  • মাথাব্যথা ও 
  • বমিবমি ভাব। 

এছাড়াও অন্যান্য পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াগুলো হলো- নাক দিয়ে পানি পরা, পেট ব্যথা, দূর্বলতা, পেট ফাঁপা, ঝিম ঝিম করা, কাশি, কোষ্ঠকাঠিন্য এবং অনিদ্রা। পরিলক্ষিত অনাকাঙ্খিত পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াগুলো ক্ষণস্থায়ী এবং মৃদু। Finix 20 দীর্ঘ ও স্বল্পমেয়াদী চিকিৎসা সুসহনীয়।

শেষকথা

Finix 20 ঠান্ডা ও শুষ্ক স্থানে রাখুন। ঔষধ বাচ্চাদের ও পোষা প্রাণীদের নাগালের বাইরে রাখবেন সবসময়। ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী ডোজ গ্রহন করবেন।

আপনার মনে কোন প্রশ্ন থাকলে এখানে ক্লিক করুন!

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top