দৌড়ানোর টিপস | নিয়মিত দৌড় বা জগিং এর ১০ উপকারিতা জেনে নিন-

দৌড়ানোর টিপস – দৌড় বা জগিং আপনাকে দীর্ঘজীবন, আরও ভাল ঘুম, উন্নত রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা, ভাল মেজাজ এবং আরও অনেক কিছু দিতে পারে। দৌড় আমাদের রাগ নিয়ন্ত্রন করতে সহায়তা করে এবং আমাদের ধৌর্য ও বৃদ্ধি করে।

দৌড়ানোর টিপস

আপনি যখন একজন দৌড়বিদ বা রানার হয়ে উঠেন, এটি আপনার জীবনকে পরিবর্তন করে। তবে আপনি জানেন না যে এটি প্রতিটি দিকের কতটা উন্নতি করে। তাহলে চলুন জেনে নি নিয়মিত দৌড় বা জগিং এর ১০ উপকারিতা।

দৌড়ানোর টিপস – নিয়মিত দৌড় বা জগিং এর ১০ উপকারিতা জেনে নিন-

১-দৌড় বা জগিং আপনাকে আরও ভাল ঘুমাতে সহায়তা করে

আমরা অনেকে পরিমাণ মতো ঘুম না হওয়ার মতো সমস্যায় আছি, এর অনেক কারন থাকতে পারে, তবে আমরা যদি এখন থেকেই নিয়মিত দৌড় বা জগিং করে তাহলে আমরা এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারি।

২- রানিং আপনার হাড় মজবুত করে- দৌড়ানোর টিপস

জগিংয়ের সুবিধা হ’ল এটি হাড়ের স্বাস্থ্য বজায় রাখে। আপনি যখন জগিং বা রানিং শুরু করবেন তখন হাড়গুলি কিছুটা চাপ এবং বোঝা অনুভব করে। জগিং হাড়কে এই অতিরিক্ত চাপ সহ্য করতে প্রস্তুত করে যা এটি নিয়মিতভাবে সহ্য করা শুরু করে।

জগিং রানিং হাড়কে শক্তিশালী করে এবং এবং আঘাতগুলি প্রতিরোধ করে। এটি হাড়ের ঘনত্বকে উন্নত করে এবং অস্টিওপোরোসিস, অস্টিওআর্থারাইটিস এবং রিউম্যাটয়েড আর্থ্রাইটিসের মতো সমস্যাগুলি ছাড়ে। এটি নিতম্ব এবং মেরুদণ্ডের হাড়কে শক্তিশালী করে তোলে।

৩ – রানিং আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা উন্নত করে

অনেক গবেষণায় দেখা গেছে যে, নিয়মিত রানিং বা দৌড় আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষঅমতা বৃদ্ধি করতে পারে।

এটা প্রমাণিত যে, জগিং বা রানিং চলমান রোগের বিরুদ্ধে শরীরের নজরদারি উন্নত করতে পারে, কম প্রদাহ, অন্ত্রের মাইক্রোবায়োটা সংমিশ্রণ বৃদ্ধি করতে পারে, উপরের শ্বাসযন্ত্রের সংক্রমণ এবং ইনফ্লুয়েঞ্জার ঝুঁকি হ্রাস করতে পারে এবং অ্যান্টিবডি প্রতিক্রিয়া উন্নত করতে পারে।

৪- দৌড় বা রানিং ক্যান্সারের ঝুঁকি হ্রাস করে- দৌড়ানোর টিপস

২০১৬ সালে আমেরিকার একটি গবেষনায় প্রমানিত হয়েছে যে, যারা নিয়মিত শরীরচর্চা বা ব্যায়াম তথা রানিং বা জগিং করে তারা তুলনামূলক ভাবে সুস্থ্য থাকে।
দুর্ভাগ্যক্রমে ক্যান্সারে আক্রান্ত হলে দৌড়ানোও সহায়ক। তবে অবশ্যই সেটা চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী।

৫- দৌড়ানো মানসিক স্বাস্থ্যের উন্নতি করে এবং হতাশাকে হ্রাস করে

অনেক রানার শারীরিক সুস্থতার উন্নতি করতে দৌড় বা জগিং করে থাকে। নিয়মিত দৌড়ানোর ফলে আমাদের অনেক খারাপ অভ্যাস দূর হয়। দৌড় আমাদের রাগ নিয়ন্ত্রন করতে সহায়তা করে। নিয়মিত দৌড় বা জগিং এর ১০ উপকারিতা

হ্যান্ডবুক স্পোর্ট অ্যান্ড এক্সারসাইজ সাইকোলজির একটি অধ্যায় বলেছে: “মানসিক ব্যাধিগুলির চিকিত্সায় বিশেষত হতাশায় ব্যায়ামের ব্যবহারকে সমর্থন করার যথেষ্ট প্রমাণ রয়েছে।” এই প্রমাণ হিসাবে যেমন ইতিবাচক হিসাবে উপস্থিত হয়, এর অর্থ এই নয় যে হতাশার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের সময় আপনার কেবল দৌড়াদৌড়ি এবং অন্যান্য ফিটনেস অনুশীলনের উপর নির্ভর করা উচিত। হতাশা একটি গুরুতর, বিস্তৃত রোগ, এবং চিকিত্সা পদ্ধতির সাথে এটি মোকাবিলা করা উচিত।

৬- রানিং গ্লুকোজ নিয়ন্ত্রণের উন্নতি করে এবং ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমায়

উচ্চ রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা, যা প্রায়শই ডায়াবেটিসের দিকে পরিচালিত করে। দৌড় বা রানিং ডায়াবেটিস প্রতিরোধ বা হ্রাস করতে পারে।

৭- দৌড় আপনার রক্তচাপকে নিয়ন্ত্রন করে- দৌড়ানোর টিপস

দৌড় এবং অন্যান্য পরিমিত ব্যায়াম হ’ল রক্তচাপ কমানোর জন্য একটি প্রমাণিত উপায়, দৌড় বা রানিং উচ্চ রক্তচাপ কে নিয়ন্ত্রনে রাখে।

৮- দৌড়াদৌড়ি আপনার আত্মমর্যাদাবোধকে বাড়িয়ে তোলে

আমরা রানারদের কাছ থেকে হাজার হাজার গল্প শুনেছি কীভাবে দৌড়াদৌড়ি তাদের একটি গুরুত্বপূর্ণ জীবনের পাঠ শিখিয়েছিল। হা সত্যি তাই

৯- দৌড় বা জগিং আপনার অতিরিক্ত ওজন কমাতে সহায়তা করে- দৌড়ানোর টিপস

৩০ মিনিট রানিং বা দৌড় ৩০০ ক্যালোরি পর্যন্ত বার্ন করতে পারে। আমাদের সুস্থ সুন্দর শরীরের জন্য আমাদের নিয়মিত দৌড়ানো উচিত। দৌড় এবং শারীরিক ব্যায়াম শরীরের স্ট্রাকচার ঠিক রাখে এবং আমাদের সুস্থ সুন্দর দেহ দেয়। নিয়মিত দৌড় বা জগিং এর ১০ উপকারিতা

১০- জগিং বা দৌড় আপনার হার্ট কে সুস্থ রাখে- দৌড়ানোর টিপস

জগিং বা দৌড় একটি দুর্দান্ত ওয়ার্কআউট যা আপনার হার্টের স্বাস্থ্যকে বাড়িয়ে তোলে। এটি হার্টের সমস্যা এবং রোগকে উপশম করতে সহায়তা করে। জগিং নিশ্চিত করে যে রক্তকে হৃদপিণ্ডে দ্রুত পাম্প করা হয় এবং এইভাবে রক্তচাপ বজায় রাখে। কোলেস্টেরল এবং রক্তে গ্লুকোজের মাত্রাও নিয়ন্ত্রণে থাকে।

আরো পড়ুন- ৮ টি সেরা কৌশল যা আপনাকে ম্যারাথনে আরো সহজে এবং দ্রুত দৌড়াতে সাহায্য করবে-

শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *