আক্কেল দাঁতের ব্যথা কমানোর উপায় | ১০ টি সেরা ঘরোয়া টিপস!

আক্কেল দাঁতের ব্যথা কমানোর উপায় – এমন কোন মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবে না যাদের আক্কেল দাঁত নিয়ে সমস্যা হয় নি। আমাদের প্রত্যেকেরই আক্কেল দাঁত ওঠার সময় আমরা এটির ব্যথার জন্য প্রচন্ড কষ্ট পেয়ে থাকি। 

আজকের নিবন্ধে আমরা কথা বলবো আক্কেল দাঁতের ব্যথা কমানোর উপায় নিয়ে।  চলুন শুরু করা যাক।

প্রিয় বন্ধুরা আমরা যেটা বুঝি সেটা হল আমরা বাঙালিরা সাধারণত বলে থাকি যে আক্কেল হতে গেলে আক্কেল দাঁত থাকতে হবে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ১৭ থেকে ২৫ বছর বয়সী ছেলেমেয়েরা  আক্কেল  দাঁতের ব্যথার সমস্যায় ভোগে।  তবে আপনি চাইলেই ঘরোয়া চিকিৎসায় আক্কেল দাঁতের ব্যথা দূর করতে পারে।  

আক্কেল দাঁত ওঠার সময় প্রচন্ড ব্যথা থাকে, মাড়ি অনেক ফুলে যায়।  তাই এটিকে কোনভাবেই অবহেলা করবেন না। তাহলে চলুন আক্কেল দাঁতের ব্যথা কমানোর ঘরোয়া ১০ টি উপায় জেনে নি।

 ১)  লবঙ্গ- আক্কেল দাঁতের ব্যথা কমানোর উপায়

একটি তুলোর বলের মধ্যে কয়েকটি লবঙ্গ নিন।  দাঁতের মাড়ি ব্যথার স্থানে এটা ভালোভাবে ধরে রাখুন। প্রতিদিন দুই থেকে তিনবার ব্যথা না যাওয়া পর্যন্ত এটি ব্যবহার করুন। এছাড়াও দুই থেকে তিনটি লবঙ্গ আক্কেল দাঁতের ব্যথার স্থানে রাখতে পারেন।  এটি আক্কেল দাঁতের ব্যথা খুব দ্রুত কমিয়ে দিতে পারে।

২)  রসুন- 

 দাঁত ব্যথা কমাতে রসুন অসাধারণ ভাবে কাজ করে।  এক কোয়া রসুন চিবিয়ে খেতে পারেন।  অথবা দাঁতের মাড়ি ব্যথার স্থানে চেপে রাখুন। অথবা রসুন ছোট ছোট করে কেটে আপনার আক্রান্ত স্থানে  লাগাতে পারেন। এভাবে 10 মিনিট রাখুন এরপর হালকা গরম পানি দিয়ে কুলি করে ফেলুন।  মাড়ির ব্যথা না যাওয়া পর্যন্ত প্রতিদিন দুইবার করে এটি ব্যবহার করুন।

আরো পড়ুন- রসুন এর উপকারিতা – ১১ টি গুণাগুণ জেনে নিন!

৩)  লবণ

এক কাপ কুসুম গরম পানিতে 1 চামচ লবণ নিয়ে ভাল করে নাড়িয়ে নিন। এবার এমন ভাবে গড়গড়া করুন যাতে দাঁতের মাড়ির আক্রান্ত স্থানে লবণ পানি পৌঁছায়। এভাবে ব্যথা না যাওয়া পর্যন্ত এটি দিনে দু তিনবার করতে পারেন।

 ৪) পেঁয়াজ-  আক্কেল দাঁতের ব্যথা কমানোর উপায়

অ্যান্টিসেপটিক অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল এর মত গুরুত্বপূর্ণ উপাদান রয়েছে পেঁয়াজে।  দাঁতের ব্যথা সহ জীবাণু দূর করতে সহায়তা করে।  তাই একটি পিয়াজ কেটে নিন এবং আপনি চাইলে এটি চিবিয়ে খেতে পারেন।  অথবা ব্যথার স্থানে এক টুকরো পেঁয়াজ কেটে রেখে দিন।  দেখবেন যে খুব তাড়াতাড়ি দাঁতের মাড়ির ব্যথা কমে যাবে। 

৫) কচি পেয়ারা পাতা

 দাঁতের ব্যথা কমাতে দারুন ভাবে  কাজ করে।  কিছু কচি পেয়ারা পাতা নিন এবং গরম পানিতে সিদ্ধ করুন।  এবার সেদ্ধ পাতাগুলো আলাদা করুন এবং ভালো করে  দাঁত দিয়ে চিবিয়ে নিন।  দেখবেন খুব দ্রুতই দাঁতের মাড়ির ব্যথা থেকে আপনি মুক্তি পাবেন।  ব্যথা না যাওয়া পর্যন্ত দিনে দুই থেকে তিনবার এটি ব্যবহার করুন। 

৬) আপেল সিডার ভিনেগার

 আক্রান্ত স্থানে  আপেল সিডার ভিনেগার ব্যবহার দাঁতের ব্যথা থেকে পরিত্রান পাওয়া যায়।  তাই এখনই একটি তুলার বলে আপেল সিডার ভিনিগার মিশিয়ে নিন এবং দাঁতের মাড়ি ব্যথার স্থানে চেপে ধরুন।  দেখবেন যে খুব দ্রুতই আপনি ব্যথা থেকে মুক্তি পাবেন। 

আরো পড়ুন- আপেল সিডার ভিনেগার খাওয়ার নিয়ম – ২০ টি স্বাস্থ্যকর টিপস!

৭) চায়ের লিকার

 এটি দারুন ভাবে কাজ করে  দাঁতের মাড়ির ব্যথা কমাতে গরম চায়ের লিকার খেতে পারেন দুধ চিনি ছাড়া।  খুব অল্প সময়ের মধ্যেই সাময়িকভাবে ব্যথা কমবে।

৮) শসা-  আক্কেল দাঁতের ব্যথা কমানোর উপায়

  একটি শসা  কেটে নিন এবং আক্কেল দাঁতের ব্যথার স্থানে ধরে রাখুন। আপনার যদি ঠান্ডা সেনসিটিভিটির সমস্যা না থাকে তাহলে ঠান্ডা শসা ও আক্রান্ত স্থানে লাগাতে পারেন।  শসার রস দাঁত ও মাড়ির ব্যথা দারুণভাবে সারিয়ে তোলে।

আরো পড়ুন- দাঁতের মাড়ি ব্যথা কমানোর উপায় – ঘরোয়া সমাধান!

 ৯) পুদিনা পাতা- আক্কেল দাঁতের ব্যথা কমানোর উপায়

 পুদিনা পাতা নানা ধরনের রোগ সারিয়ে তুলতে পারে।  বহু বছর ধরেই বিভিন্ন রোগ সারাতে ঘরোয়া চিকিৎসার অন্যতম ঔষধি হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে।  তাই আক্কেল দাঁতের ব্যথা কমাতে  কয়েকটি পুদিনা পাতা নিয়ে চিবিয়ে খান।  অল্প সময়ের মধ্যে ব্যথা থেকে মুক্তি পাবেন। 

১০) লেবু

 একটি লেবু কেটে নিন এবার দাঁতের ব্যথার স্থানে এক টুকরো লেবু নিয়ে ঘষুন।  লেবুর রস দাঁতের মাড়ির ব্যথা কমাতে সাহায্য করে।  তাই আপনি চাইলে খুব সহজে এটি ব্যবহার করতে পারেন। 

আরো পড়ুন- লেবুর গুণাগুণ । প্রতিদিন লেবু খেলে কী হয়?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *