Download Betwinner App
মিষ্টি কুমড়ার উপকারিতা

মিষ্টি কুমড়ার ৬ টি গুরুত্বপূর্ণ উপকারিতা জেনে নিন!

মিষ্টি কুমড়ার উপকারিতা – আমাদের দেশের অতি পরিচিত একটি সবজি মিষ্টি কুমড়া। মিষ্টি স্বাদের এই সবজি সারা বছর জুড়েই পাওয়া যায়। ছোট বড় সকলেরই পছন্দের একটি সবজি এটি। 

মিষ্টি কুমড়া দেখতে যতটা সুন্দর, এর উপকারিতা ততটাই বেশি। তাই আপনি যদি মিষ্টি কুমড়া অপছন্দ করেন, তবে আপনাকে বঞ্চিত হবেন অনেক উপকারিতা থেকে। 

এর উপকািরতা সম্পর্কে পুষ্টিবিদরা বলেছেন, প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় মিষ্টি কুমড়ার উপস্থিতি বিভিন্ন রোগ হতে দূরে রাখে। কেননা, এতে রয়েছে নানা ধরনের পুষ্টি উপাদান। 

এক নজরে মিষ্টি কুমড়া সম্পর্কে জেনে নিন…. 

মিষ্টি কুমড়া

মিষ্টি কুমড়া বারোমাসিক একটি সুপরিচিত সবজি। একে ইংরেজিতে sweet gourd বা Pumpkin বলা হয়। এটি মিষ্টি লাউ নামেও পরিচিত। দেখতে গোলাকার কিন্তু হাইব্রিড জাতের মিষ্টি কুমড়া লম্বাটে হয়ে থাকে। মিষ্টি স্বাদের এই সবজি বিভিন্ন পুষ্টিগুণে ভরপুর। 

বিভিন্ন প্রকার ভিটামিন সমৃদ্ধ এই মিষ্টি কুমড়া গর্ভবতী, শিশু থেকে শুরু করে সর্দি-কাশি, চোখ, ত্বক, হার্ট, ক্যান্সার ইত্যাদি জটিল রোগ প্রতিরোধের ক্ষেত্রে মিষ্টি কুমড়ার উপকারিতা অতুলনীয়।

>> আনার বা বেদানা ফলের উপকারিতা জেনে নিন!   

মিষ্টি কুমড়ায় এ্যান্টি-অক্সিডেন্টসহ বিভিন্ন ধরনের ভিটামিন যেমন-ভিটামিন বি-কমপ্লেক্স, ভিটামিন-এ, সি, ই, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, পটাসিয়াম, জিংক, আয়রন, ফরফরাস ইত্যাদি খনিজ পদার্থ রয়েছে।

মিষ্টি কুমড়া দিয়ে বিভিন্ন সুস্বাদু খাবার তৈরী করা হয়। যেমন- মিষ্টি কুমড়ার হালুয়া, ভাজা, ভাজি, চচ্চড়ি, মিস্টি কুমড়ার ঝোল ইত্যাদি। তরকারি ছাড়াও মিষ্টি কুমড়া দিয়ে ভর্তা খাওয়ার প্রচলন রয়েছে। বিভিন্ন দেশে এটি ডেজার্ট, স্যুপ এবং সালাদে ব্যবহার করে থাকে। 

নানান পুষ্টিগুণে ভরপুর এই মিষ্টি কুমড়ার উপকারিতা সম্পর্কে জেনে নিন…

মিষ্টি কুমড়ার উপকারিতা 

মিষ্টি কুমড়ার উপকারিতা সবজির মধ্যে অনিন্দ্য সুন্দর একটি সবজির নাম হলো মিষ্টি কুমড়া। মিষ্টি কুমড়া খেতে যেমন সুস্বাদু তেমনি আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য অত্যান্ত উপকারী। 

১. মিষ্টি কুমড়া ভিটামিন-এ সমৃদ্ধ। ফলে চোখের জন্য এই সবজিটি অত্যন্ত উপকারী। বিশেষ করে রেটিনার বিভিন্ন ধরনের রোগ প্রতিরোধে মিষ্টি কুমড়া বিশেষ ভুমিকা পালন করে থাকে। শুরু চোখের জন্য নয়, ভিটামিন-এ এর অভাব জনিত সকল রোগে মিষ্টি কুমড়া উপকারী। 

২. মিষ্টি কুমড়াতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন সি যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তোলে। সর্দি, কাশি, ঠান্ডা লাগা সারিয়ে তুলতে সাহায্য করে মিষ্টি কুমড়া। মিষ্টি কুমড়ার ভিটামিন-এ ও সি চুল এবং ত্বক ভালো রাখতে সাহায্য করে। তাই উজ্জ্বল চকচকে চুল এবং সুন্দর ত্বক পেতে নিয়মিত মিষ্টি কুমড়া খেতে পারেন।

>> ভিটামিন সি জাতীয় খাবার কী কী বিস্তারিত জানুন! 

৩.এ্যান্টি-অক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ মিষ্টি কুমড়া ক্যান্সার প্রতিরোধে সাহায্য করে। মিষ্টি কুমড়া রক্তে কোলেস্টেরল কমিয়ে আর্টারির দেয়ালে চর্বির স্তর জমাট বাঁধতে বাধা সৃষ্টি করে ফলে নিয়মিত এটি খেলে হৃদ রোগের ঝুঁকি কমে যায়।  

৪. মিষ্টি কুমড়াতে রয়েছে অধিক পরিমাণে বিটাকরোটিন যা এক ধরনের শক্তিশালী এ্যান্টি-অক্সিডেন্ট। যা বিভিন্ন দূষণ, স্ট্রেস, এবং কেমিক্যাল যুক্ত খাবারের ক্ষতিকর উপাদান থেকে আমাদের প্রতিরোধ করে।

৫. মিষ্টি কুমড়াতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ম্যাগনেসিয়াম ও পটাশিয়াম যা হাইপার টেনশন হতে দূরে সরিয়ে রাখে। এছাড়া মিষ্টি কুমড়ার বিভিন্ন উপাদান ইউরিনেশনের সমস্যা কমায় এবং কিডনিতে পাথর হতে বাধা সৃষ্টি করে। 

৬. মিষ্টি কুমড়া আঁশযুক্ত। ফলে সহজেই হজম হয়। হজম শক্তি বৃদ্ধি করতে এবং কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে মিষ্টি কুমড়ার জুড়ি নেই। 

সবধরনের অর্গানিক ফুড, ২০০+ আয়ুর্বেদ ঔষধ ও খেলার সামগ্রী ঘরে বসেই অর্ডার করুন  আমাদের শপ থেকে- https://shop.healthd-sports.com

>> কুমড়া চাষ পদ্ধতি সমূহ জেনে নিন!

উপসংহার

অতএব, জানা গেল মিষ্টি কুমড়ার উপকারিতা এবং পুষ্টিগুণ আমাদের শরীরের জন্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। সুতরাং শরীর কে সুস্থ এবং রোগমুক্ত রাখতে আজ থেকেই খাদ্য তালিকায় নিয়মিত মিষ্টি কুমড়া রাখার অভ্যাস গড়ে তুলুন।   

পুষ্টিকর খাবার নিয়ে আরও পড়ুন…

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top
Scroll to Top